1. nazmulrj40@gmail.com : md nazmul : md nazmul
  2. mizansatkhirapress@gmail.com : Satkhira Barta : Satkhira Barta
  3. tasahmed7@gmail.com : satkhira barta : satkhira barta
  4. shohaghassan0912@gamil.com : মোহনা নিউজ : মোহনা নিউজ
শুক্রবার, ০২ জুন ২০২৩, ০৬:১৫ অপরাহ্ন

তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে দেশী অস্ত্রের মুখোমুখি হতে হলো সাংবাদিককে থানায় অভিযোগ-

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২২
  • ৩১ Time View

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি:

সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ৯নং খলিশখালী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাশিয়াডাংগা গ্রামের এলজি-এসপি-(রাস্তা) ০৩ অর্থ বৎসর ২০২২- ২০২৩ প্রকল্পের কাজ এর সম্পূর্ণ ভাবে হচ্ছে কিনা দেখতে গেলেই সাংবাদিককে হতে হলো দেশি অস্ত্রের মুখোমুখি থানায় অভিযোগ।

অভিযোগে উল্লিখিত আছে যে আমি মোঃ আল-আমিন সরদার পিতা তুব্বাত সরদার গ্রাম: কাশিয়াডাংগা থানা: পাটকেলঘাটা, উপজেলা:তালা জেলা সাতক্ষীরা দীর্ঘদিন যাবত দৈনিক সকালের শাপলা ও দৈনিক সোনার বাংলাদেশ পত্রিকার নিজস্ব প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছি গত ১২/১১/২০২২ তারিখে এলজি-এসপি-(রাস্তা) ০৩ অর্থ বৎসর ২০২২- ২০২৩ প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হচ্ছে কিনা তার জন্য ৯ নম্বর খলিশখালি ইউনিয়ন পরিষদের সচিব বিশ্বজিৎ ঘোষ এর কাছে ২১/১১/২০২২ তথ্যের জন্য কথা বলি সেই কেন্দ্র করে, আজ-বৃহস্পতিবার ২৪/১১/২০২২ তারিখে আমি তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ৯ নম্বর খলিশখালী ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাশিয়াডাংগা বাজারে চায়ের দোকানে দাঁড়িয়ে বিশ্রাম করার সময় ইউপি সদস্য রবিউল ইসলাম আমাকে খুন জখম করার হুমকি দেয় এবং দেশী অস্ত্র নিয়ে আমার উপরে ঝাপিয়ে পড়ে আমি জীবনের নিরাপত্তা চাই
এর জন্য গ্রামের গণ্যমান্য ব্যক্তির আইনের আশ্রয় গ্রহণের পরামর্শ দেন।
অতএব, প্রার্থনা বিষয় তদন্ত পূর্বক আসামির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করায় একান্ত মর্জি হয়।

 

এ ব্যাপারে সাংবাদিক আল আমিন সরদার পিতা তুব্বাত সরদার জানান আমি এলজি-এসপি- ০৩ অর্থ বৎসর ২০২২ ২০২৩ প্রকল্পের কাজের সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করছে কিনা তার তথ্য পালন করতে যে হামলা শিকার হয়েছি এবং দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বাজারের ভিতরেই জনগণের সম্মুখীন আমাকে খুন জখম করার চেষ্টা করে আমি এ ব্যাপারে পাটকেলঘাটা থানায় একটা লিখিত অভিযোগ দিয়েছি অবশ্যই প্রার্থনা বিষয় তদন্ত পূর্বক আসামির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করায় একান্ত মর্জি হয়
এ ব্যাপারে সাংবাদিকগন ইউপি সদস্য রবিউল ইসলাম কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান চেয়ারম্যান সাহেব বলেছে ওকে মেরে ফেলো দিতে বলেই ফোনটা কেটে দেয়।

এব্যাপারে ৯ নং খলিষশখালি ইউনিয়নের পরিষদের চেয়ারম্যান মোল্লা সাব্বির হোসেন কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান আসলে এ বিষয়ে মেম্বার রবিউল সাথে কোন কথা হয়নি সে যেটা বলছে আমার ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য বলছে সে যদি সাংবাদিকদের সাথে দুর্ব্যবহার করে অবশ্যই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে এমন আশা করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

প্রধান উপদেষ্টা

মো: মোশারফ হোসেন
প্রযুক্তি সহায়তায়: ইয়োলো হোস্ট