1. nazmulrj40@gmail.com : md nazmul : md nazmul
  2. mizansatkhirapress@gmail.com : Satkhira Barta : Satkhira Barta
  3. tasahmed7@gmail.com : satkhira barta : satkhira barta
  4. shohaghassan0912@gamil.com : মোহনা নিউজ : মোহনা নিউজ
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

রাণীরবন্দরে তিন হাজার টাকার লেনদেনের জেরে দু্ই বন্ধু মিলে প্রাণ নিলো মিরাজের: হত্যাকাণ্ডের ১২ ঘন্টার মধ্যে তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আসিফ ও লিটনকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

Reporter Name
  • Update Time : শনিবার, ১৮ মার্চ, ২০২৩
  • ২৭১ Time View

————————–
মোঃ জাহিদ হোসেন, দিনাজপুর প্রতিনিধি ।।
এক বন্ধু আরেক বন্ধুকে এক বছর আগে ৩ হাজার টাকা লেনদেনকে জেরে দু্ই বন্ধু মিলে প্রাণ নিয়েছে অপর আরেক বন্ধু মিরাজের। (১৫ মার্চ) বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার চাঞ্চল্যকর মিরাজুল ইসলাম হত্যা মামলায় ওই ২ বন্ধুকে আটক করেছে চিরিরবন্দর থানা পুলিশ। আটককৃতরা হলেন আসিফ ইসলাম (১৬)। সে উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নের নদীরপাড় গ্রামের মোঃ হবিবর রহমানের পূত্র ও অপর আরেকজন লিটন ইসলাম (১৬) সে একই ইউনিয়নের রাণীপুর গ্রামের মুন্সিপাড়ার নজরুল ইসলামের পূত্র। এ ঘটনায় বুধবার নিহত মিরাজের বাবা মোঃ আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলা সূত্রে জানাগেছে, প্রায় ০১ বছর পূর্বে নিহত মিরাজ আসামী আসিফ ইসলামের নিকট ৩ হাজার টাকা ধার নেওয়া নিয়ে মনোমালিন্য শুরু হয় এবং র্পূব পরিকল্পনার অংশ হিসেবে গত ১৪ মার্চ অনুমান রাত ৯টার দিকে আসামী আসিফ তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন দিয়ে নিহত মিরাজকে কৌশলে ডেকে নিয়ে নিহত মিরাজের বাই সাইকেল যোগে তিনজন ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা করে। এ সময় রাত সাড়ে ৯টার দিকে বা মধ্যবর্তী সময়ে ঘটনাস্থলে যায় এবং নির্জনতা নিশ্চিত করে আসিফ আলীর নির্দেশে লিটন পেছন থেকে নিহত মিরাজের গলায় ছোড়া দিয়ে পোচ দেয়। সে সময় নিহত মিরাজ সাইকেল থেকে মাটিতে পড়ে গেলে মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য লিটন ইসলাম গলায় ছোড়া দিয়ে আরো একটি পোচ দেয়। এর পরে মৃত্যু নিশ্চিত হলে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত ছোড়াটি পাশের ভূট্টা ক্ষেতে ছুড়ে মারে এবং ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। তাদের পরিহিত কাপড় চোপড় খুলে খালি গায়ে রাতের অন্ধকারে গ্রামের পথটুকু পার হয় এবং বাড়ির পাশে ময়লার স্তুপে ফেলে দেয়। নিহত মিরাজের মোবাইল ফোনটি বন্ধ করে আসিফ ইসলাম তার বাড়িতে রেখে দেয়। স্থানীরা জানায়, রাত সাড়ে ১১টার দিকে মঙ্গলবার উদ্ধার করা হয় কিশোর মিরাজুলের মরদেহ।আলোকডিহি ইউনিয়নের গছাহার গ্রামের আইজুল মেম্বারপাড়া এলাকায় রাত ১০টার দিকে এক পথচারী তার গলাকাটা মরদেহ দেখে। খবর পেয়ে পুলিশ রাতে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বুধবার সকালে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল হাসপাতালে পাঠায়। পরে ময়না তদন্ত শেষে ওই দিন বিকেলে লাশ পরিবারের হস্তান্তর করলে পারিবারিক কবরস্থানে নিহত মিরাজের দাফন সম্পূন্ন করা হয়। এ বিষয়ে চিরিরবন্দর থানার চৌকস অফিসার ইনচার্জ ওসি-মো.বজলুর রশিদ তাদের গ্রেফতারের বিষয়টি প্রস রিলিজের মাধ্যমে নিশ্চিত করেন।

অপরদিকে-চিরিরবন্দর থানার চৌকস অফিসার ইনচার্জ ওসি বজলুর রশিদ কে
অভিনন্দন জানান এলাকাবাসী,,,
হত্যাকাণ্ডের ১২ ঘন্টার মধ্যে পুলিশ তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে আসিফ এবং লিটনকে গ্রেপ্তার করায়। মোঃ জাহিদ

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

প্রধান উপদেষ্টা

মো: মোশারফ হোসেন
প্রযুক্তি সহায়তায়: csoftbd