সুবর্ণচরে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের, বিষ প্রয়োগে লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন!

আহসান হাবীব স্টাফ রিপোর্টারঃ-

নোয়াখালী সুবর্ণচরে একটি মৎস খামারে বিষ প্রয়োগ করে লক্ষাধিক টাকার মাছ মেরে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা।শনিবার (২৯ এপ্রিল) রাতে উপজেলার ৩নং চরক্লার্ক ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড দক্ষিণ চরক্লার্ক গ্রামে (শান্তি মার্কেট)এলাকায় আসাদুল হকের পুত্র আব্দুল আলিমের মৎস খামারে এ ঘটনা ঘটে।

বিষ প্রয়োগের ফলে প্রজেক্টের প্রায় লক্ষাধিক টাকার মাছ মরে ভেসে উঠেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত আব্দুল আলিম বলেন, প্রায় দেড় একর জায়গার উপর দীর্ঘদিন ধরে মাছ চাষ করে আসছি।

এবার খামারে ব্রিগেড, তেলাপিয়া, সিলভার কার্প,রুই,কাতলসহ দেশীয় বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করেছি।

কিছু দিনের মধ্যেই মাছগুলো বাজারে বিক্রির উপযোগী হয়ে উঠতো।

শনিবার রাত ৯টাই মোটরসাইকেল যোগে একই ইনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড কেরামতপুর এলাকার মৃত আবুল খায়েরের পুত্র আমির রসুল(৪৫) ও চরক্লার্ক গ্রামের লেদনের পুত্র ভুট্টুকে আমার খামারের আশপাশে ঘোরাঘুরি করতে দেখেছি, এর কিছুক্ষণ পরেই আমার মৎস খামারের মাছ মরে ভেসে উঠেছে,সকালে খামারের পাড়ে একটি বিষের বোতল পড়ে থাকতে দেখি।খামারে বিষ প্রয়োগের কারণেই সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এতে আমার প্রায় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, আমাকে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আমির রসুল বলেন, আব্দুল আলিমের মাছ নিধনের বিষয় আমি কিছুই জানিনা, আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা চলছে।

সুবর্ণচর উপজেলা মৎস কর্মকর্তা খোরশেদ আলম জানান, বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের বিষয়টি শুনেছি, ক্ষতিগ্রস্তকে আইনি সহযোগিতা নিতে পরামর্শ দিয়েছি।

চরজব্বর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেব প্রিয় দাস বলেন, মাছ নিধনের বিষয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি, অভিযোগ দায়ের করা হলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


Notice: ob_end_flush(): Failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/satkhirabarta/public_html/wp-includes/functions.php on line 5427

Notice: ob_end_flush(): Failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/satkhirabarta/public_html/wp-content/plugins/really-simple-ssl/class-mixed-content-fixer.php on line 107